Maximum PC

For All Tips and Tricks for Windows

Monday, April 27, 2015

How to hack Facebook gmail yahoo password by Ardamax Keylogger

Posted by Shamim Imtiaz Khan

আজকে আমি নতুনদের কে পরিচয় করিয়ে দিবো সেরা কিলগার Ardamax এর সাথে (আমার কাছে এইটা বেস্ট :p) । প্রথমেই, আপনার PC এর অ্যান্টিভাইরাস Disable করুন * ভয় পাইয়েন না, এটা আপনার pc এর কোন ক্ষতি করবে না :D ;) * । এরপর, Ardamax Keylogger ডাউনলোড করে ফেলুন নিচের লিঙ্ক থেকে।





এবার Install করার পালা :D । Setup File টা Open করুন।

১। ‘I Agree’ Button এ ক্লিক করুন।



২। ‘Next’ Button এ ক্লিক করুন।



৩। Destination Folder এ “C:ProgramDataPMG” সেট করুন এবং ‘Install’ Button এ ক্লিক করুন।



৪। ইন্সটলেশন শেষ হয়ে গেলে ‘View the Quick Tour’ অপশনটি uncheck করে ‘Run Ardamax Keylogger’ সিলেক্ট করে ‘Finish’ এ ক্লিক করুন।


এবার setup শেষ হয়ে গেলে টাস্কবারে এরকম একটা icon দেখতে পাবেন । আইকন টাতে রাইট ক্লিক করে ‘Enter registration Key’ তে ক্লিক করুন->>
Name:Nemo / SnD
Key :YFSQSHVVLHUOOQTY
উপরের মত লিখে Register করুন এবং নিচের মত মেসেজ দেখতে পাবেন ->>


এখন আমরা Remote Keylogging করব। এর জন্য একটি File বানাবো যেটা Victim কে পাঠাতে হবে এবং Victim File টা ওপেন করলেই এই কিলগারটি তার পিসি তে অটোমেটিক ইন্সটল হয়ে যাবে এবং তার পিসি এর যাবতীয় সকল অ্যাকাউন্ট এর ইমেইল, পাসওয়ার্ড নির্দিষ্ট সময় পরপর আপনাকে ইমেইল করে পাঠাবে :D :D
চলুন তাহলে শুরু করি :v ->>

Icon টাতে আবার রাইট ক্লিক করুন এবং ‘Pre-Configured Installation’ এ ক্লিক করুন->>


১। ‘Next’ এ ক্লিক করুন।


২। ‘Installation folder on target Computer’ বক্সে ডিফল্ট হিসেবে যা আছে তাই রেখে দিন। আপনি যদি কিলগারটি অন্য কোনো ফাইলের সাথে বাইন্ড করে দিতে চান (Exp. JPEG অথবা .exe ফাইলের সাথে) তাহলে ‘Append keylogger engine to file or another application’ বক্সে চেক মারেন অ্যান্ড একটা মনের মত ফাইল সিলেক্ট করে দেন । নিচের ছবি তে দেখেন আমি কিলগার ফাইল টাকে একটা .png ফাইলের সাথে বাইন্ড করে দিসি। এরপর ‘Next’ এ ক্লিক করুন।




৩। আবার ‘Next’ এ ক্লিক করুন (সবগুলো বক্সে চেক মারবেন :D )


৪। ‘Security’ Window তে পাসওয়ার্ড দিন। এই পাসওয়ার্ড এর কারনে আপনার লগ ফাইল আপনি ব্যতিত আর কেউ পড়তে পারবে না এবং কিলগার কুইট করতে পারবে না, তাই পাসওয়ার্ড দেয়া ভালো। এরপর ‘Next’ এ ক্লিক করুন।

৫। ‘Options’ Window তে নিচের মত কনফিগারেশন দেন এবং নেক্সট চাপুন ->>


৬। ‘Control’ Window তে ‘Send logs every’ অপশন টাতে চেক মারেন অ্যান্ড টাইম “1 hour” করে দিন। ‘Delivery Method’ অপশন এ ‘Email’ সিলেক্ট করুন। ‘Send only if Log size exceeds’ option থেকে চেক উঠিয়ে দিন। এরপর নেক্সট চাপুন। (নিচের মত Configure করুন)



 ৭। এবার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্টেপ ******** “”””পূর্বের Step এ নেক্সট চাপার পর আবার ‘Back’ বাটন এ ক্লিক করুন।””””” তাহলে ‘Email Configuration’ Window আসবে।  ‘Send to’ textfield এ আপনার YAHOO MAIL ID দিন (অন্য কোনোটা না দেয়াই ভাল। আমি নিজে ইয়াহু মেইল ইউজ করছি অ্যান্ড এটাতেই বেষ্ট রেজাল্ট পাওয়া যায়, অন্য গুলতে ব্যান করে দেয় অথবা লগ ফাইল আসে না) :D । ‘Username’ field এ আপনার কমপ্লিট ইয়াহু মেইল আইডি টি পুনরায় দিন। পাসওয়ার্ড ঘরে পাসওয়ার্ড লিখে দিন। ‘SMTP Server’ field এ লেখুন ‘smtp.mail.yahoo.com’ এবং ‘Port’ এর ঘরে ‘587’ বসান। ‘Security’ তে ‘SSL’ এর জায়গায় ‘TLS‘ সিলেক্ট করুন। নিচের মত করে কনফিগার করে ‘Test’ বাটন এ ক্লিক করুন। সবগুলো কাজ সঠিক ভাবে করলে মেইল successfully delivered হয়েছে মেসেজ দেখাবে এবং আপনার মেইল ইনবক্স চেক করুন (Spam বক্সে গেলে ‘Not Spam মার্ক করুন’)।







৮। ‘Ardamax’ এ ‘Control’ Window তে গিয়ে কোনো settings না চেঞ্জ করে ‘Next’ চাপুন।

৯। ‘Screenshots’ window তে ‘On timer’ সিলেক্ট করে ‘Settings’ button এ ক্লিক করুন। এবং টাইম=৫-১০ মিনিট দেন (As you wish :D )

১০। ওয়েবক্যাম উইন্ডো তে ‘Next’ চাপুন অ্যান্ড ‘Destination’ window তে ফাইলের ডেসটিনেশন ও আইকন সিলেক্ট করে ‘Next’ চেপে finish দেন অ্যান্ড ফাইনালি আপনার কাঙ্ক্ষিত ফাইল টি পাইয়া যান


:D

১১। এবার ফাইল টাকে মেইল, অথবা ফেবু তে পাঠাইয়া দেন। (Password protected Rar format এ পাঠাবেন অথবা কোনো ফ্রি হোসটিং সাইটে ছাড়েন, তবে প্লিজ জিনিস টা যেন ক্রাইম এর পর্যায়ে না চলে যায় :) )
এখন এ ফাইলটাতে ভিকটিম ডাবল ক্লিক করলেই এর সাথে বাইন্ড করা ফাইল টি (slave file) চালু হবে এবং প্রতি এক ঘণ্টা পরপর ভিকটিম এর সমস্ত ইমেইল, পাসওয়ার্ড ও তার কাজের স্ক্রিনশট মেইলের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন

0 comments:

Post a Comment